বনানী চক্রবর্তী


দুটি কবিতা

কাশ ফুল

বলেছিলে কিছু থাকবেনা...তোমার আমার পাতে সমান দুধের বাটি,ল্যাজা মুড়োগুলো ভাগ করে দেবে নিয়মিত...আমিও বলেছি বিস্বাদ এ জীবনে এবার ফুটবে কৃষ্ণচূড়া,ময়ূরের কলাপ বিস্তার,কিছুদিন বাকি আর কিছুদিন বাকি...তোমার যে সাতমহলা বাড়ি,তার সব ঘরগুলো চেনা যে হয়নি আজো...বেলজিয়ামের কাঁচে শৈশবে ফুটে ওঠা মেচেতার রঙ কিগো আরো বেশি কালো হয়ে যাবে...তবে থাক,দূর থেকে দেখি সব...দূরের আলোয় বুঝি মোহময়ী হবো আমি,তুমিও আমাকে দেখো কনে দেখা আলো আঁধারিতে...এ শরীরে ভাঁজে ভাঁজে বহুবিধ জমানো দুঃখ আছে...মেদের আড়ালে বুঝি এইবার সব ঢেকে যাবে...বলেছিলে আমার ও পাড়ার যত কোটরের চোখগুলো শরতের কাশফুল,রঙিন আকাশ পাবে...দেবীর বোধন হলে নবপত্রিকা যাবতীয় তৃণ গুল্ম বৃক্ষগুলি সাথী করে নিয়ে আসে,আমিও তেমন হবো...দুধের ফেনার মতো
শয্যার কাছে যাবো...

বারবার রজঃস্বলা কালের নিয়ম...এইভাবে স্বপ্নের ফেরিওয়ালা জানালার কাছে এসে ফিরে চলে যায় যদি,কিভাবে কখন তবে সমূহের জয় পরাজয় নিয়ে রঙিন পতাকা কোনোদিন চিলেকোঠা ভেদ করে ওই আকাশ ছোঁবে...



সমগ্রকথা

বারবার একই কথা শুনে শুনে ক্লান্ত তুমি...তাই আজ আর বলবোনা...এখন এসেছে বুঝি নরম আঁধার,এসো তবে পাশাপাশি শুয়ে শুয়ে সেই কথাগুলো ভাবি...ব্যর্থতার গ্লানিগুলি ভুলে যেতে চেয়ে যেন একবারো ছোঁবে না আমায়...ক্লান্ত ক্লান্ত ক্লান্ত নানাভাবে...ক্লান্ত শরীর মন স্নায়ুর নিস্তেজ চায় জানি,তবু...একবারো ছোঁবে না আমায়...আমিও ছোঁবোনা তোমাকে একবারো...পাশের বাড়ির কেউ যতই কাঁদুক,কালশিটে পিঠে নিয়ে,দৌড়ে যাবোনা দেখো...কি হবে এসব...চলো আজ নির্বেদ হয়ে যাই, একদম যথাযথ...সকাল হলেই গা কাপড় ধোবো...পাটভাঙা শাড়ির ন্যাপথলিন ফিকে হয়ে গেছে তবু,ভেজা চুলে সিঁদুরের দাগ দেবো, শাঁখায় লাগাবো...রেডিওর বিবিধ ভারতী বন্ধ থাক...আজ শুধু ঝমঝমে গান দিয়ে দুই কান ভরে নেবো উভয়ত:...পাশের বাড়ির শিশু,বাবা মা কার হবে কি হবে আমার জেনে,ওরাই বুঝুক...একবারো ওদিকে চাবোনা...যখন যেমন বলো তখন তেমন,একবারো কোনো দীর্ঘশ্বাস আর তোমাকে ছোঁবেনা...গায়ের সোনায় মোড়া সাতনরিহার বালা বাজুবন্ধ জমা দিয়েছিলে, কাল তুমি চলে যাও যদি আমার কি হবে,সেইকথা গ্যাস বেলুনের মতো চাঁচের সিলিংয়ে ধাক্কা খেয়ে খেয়ে মরুক এবার...আমি তবু ফিরেও চাবোনা...একটা কথাই শুধু না বললেই নয় গো তোমাকে,তুমিই শিখিয়েছিলে সমগ্রের পাশাপাশি হেঁটে চলে যেতে, তবু আজ কেন বারবার আমার কথাই দেখি এবাড়ির আনাচে কানাচে ঘুরে বহুবিধ গন্ধ বহন করে আমায় যে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে মারে....





কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন