বাপ্পাদিত্য রায়বিশ্বাস

 

দুটি কবিতা

নির্বিকল্প 


 

ঝোঁক শব্দটি নিয়ে নাড়াচাড়া করতে করতে 

শিরীষ গাছটার দিকে তাকিয়ে ভাবতাম 

ও ঝুঁকে থাকে 

                 জলের দিকে 

                 চাঁদের দিকে 

                 নাকি তিরতির আয়নার নীচে 

                     নেমে যাওয়া শিকড়ের খোঁজে 

একটা সাংঘাতিক কালবৈশাখী হল 

সকালে দেখলাম 

সে মিশকালো ছাই মেখে আনন্দমুদ্রায় স্থির 

একটাও পাতা নেই 

কোনও পাখি বসে নেই 

অন্য গাছেরা ঝুঁকে আছে ...

 

 




 ২

অস্থির 


 

পাতকুয়োটার দম 

       আস্তে আস্তে বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে 

টব টব মাটি, লোহার রড আর ঢালাই সিমেন্ট 

      তুমুল ব্যস্ততায় একটাই কাজে মগ্ন 

শুধু আমগাছের ডালটা 

এই শেষ বিকেলে অনেকখানি হাওয়া জড়িয়ে নিয়ে

                                         অস্বাভাবিক দুলছে 

কিছুতেই মানতে পারছে না 

তার এতদিনকার স্থির আয়নাজলের 

                                              চলেযাওয়াটুকু । 


 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন