প্রবীর রঞ্জন মণ্ডল

 


দুটি কবিতা


এপার ওপার ছুঁয়ে 

 

নিঃশব্দে মোহময় রাতের আওয়াজ শুনি

মৃদু স্রোতে বয়ে যাওয়া নারী নৌকার ছলাৎ জল

এপার ওপার ছুঁয়ে নদীকে উজ্জীবিত রাখে

সে শব্দও বুকের ভিতর রেখাপাত করে।

 

হঠাৎ নিস্তব্ধতা ভেঙে ডেকে ওঠে সাইরেন

যাত্রার শেষ স্টিমার পাড়ি দেবে বুঝি!

মোহময় রাত হয় খান খান 

যাত্রীরা ব‍্যস্ততায় মাথা গোঁজে যে যার স্থানে।

 

তারপর পাড়ি দেয় সিন্ধুপার

অপার রাতের সৌন্দর্য ঢাকা পড়ে জলে 

বিরামহীন একটা আওয়াজ রাতের ইঞ্জিন 

মাথার প্রকোষ্ঠ জুড়ে মোহাবিষ্ট করে।

 

ফিরে যায় শেষ রাতের যাত্রীরা 

একদিন যে যার স্থান।

 

 

 

 

 

 

উড়ান শেষে 

 

বোধের আলো

সীমারেখা ধরে ফিরে যায় 

দিন শেষে ক্লান্ত পাখায়

একঝাঁক পরিতৃপ্ত পাখি।

 

ডানা ঝাপটায়;

উড়াল পথে ফেলে রাখে পাখনা।

 

মনের কোণায় উঁকি দেয়

পিছে ফেলে রাখা খড়কুটর বাসা।

এমনিই জীবন।

উড়ান শেষে মনে পড়ে দিগন্তরেখা। 

 

 

 


 

 

 


 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন