সজ্জ্বল দত্ত

 




গুচ্ছ কবিতা


( আমার বাড়ির সামনে ছোট্ট একফালি মাঠ , তারপর আর একটা বাড়ি । সাজান গোছান বন্ধ , কেউ থাকেনা সেখানে । কেউ থাকে ? ) 

 

                     স্নানঘর 

           

 

সাবান ভাসছে ভুতুড়ে সাবান 

হাওয়া থেকে ম্যাজিকের মত নাচছে শূণ্যে 

এপাশে ওপাশে গোল হয়ে ঘুরে ফিরে বাঁয়ে ডানে

আরো নীচে আড়াআড়ি সরছে নামছে 

ঢেউ খেলতে খেলতে লম্বা মেঝের দিকে 

আবার ওপরে উঠে 

সাবান ভাসছে ফাঁকা ঝিরিঝিরি ফেনাজলে 

কেউ কোথথাও নেই 

একা হাতে বিছানায় লম্বা ধারালো ফলা  

সামনে পিছনে সামনে পিছনে 

ছুরিতে মাংস কাটছি 

রক্তে ফিনকি 

আগুন উড়ছে চোখ জ্বলছে ভেতর পুড়ছে 

আ: কী আরাম 

দেখি ঝাঁকি মেরে আলো আয় 

সাবান ভাসছিল ঝর্ণা টানছিল 

অন্ধকার ফালাফালা 

স্নানঘর ধোঁয়ায় ধোঁয়া 

 

                    কিচেন 

         

আবছা ওভেনের নীল শিখা... 

                                  ভীষণ আবছা ...

তার সামনে শাড়িতে প্যাঁচানো গোটা চকচকে

                                  কাগজ শরীর 

ঘাড় গলা কাগজের হাত নড়ছে 

নিঃশব্দে দ্বিতীয় মূর্তি 

একটু লম্বা 

দু'টো ছায়া নড়াচড়া 

কিছুটা স্পষ্ট এখন 

এক বার্ণারে ডিম ফুটছে দু'টো 

আর একটায় কেটলী তাতছে 

ডানহাত বুলোতে থাকি আমি বাঁহাতের কাঁধ অবধি নিজের

সমস্ত আঙুল তালুর চামড়ারস সামনের 

                                    রাইটিং প্যাডের কাগজে 

ওপর নীচ মাঝখান 

সাদা ফর্সা তেলতেলে 

নীচ থেকে ওপরে ফের ওপর থেকে নীচ 

পেনসিল ছুলে দিচ্ছে কেউ 

তীক্ষ্ম ছাল ছাড়ান শিস 

তেল মশলা লঙ্কাবাটায় 

                                     ঝালঝাল কবিতা লেখার শুরু

আবছা কিচেনে শুরু আমিষরান্না 

 

                     বেডরুম - ৩ 

         

 

সদ্য গোঁফের রেখা হালকা দাড়ি গালে 

লম্বামুখ তেজী টাট্টুঘোড়া আরামে উপুড় হয়ে - 

আমি তার পিঠে বসেছি এলিয়ে শুয়ে পড়েছি 

উনুন জ্বলছে ... লাগাম ধরেছি শক্ত হাতে 

খুরের ঠকঠক শব্দ ছোটার তালে তালে কোমর 

রাস্তা ছুটছে আগুনের দিকে...

দৃশ্য পাল্টালো 

সামান্য কাঁপছে ছবি 

একটু আগে খাওয়া মুঠোয় মাটনরোল 

কাগজ খুলে যাচ্ছে 

চারপাশে চিলিসস কাঁচালঙ্কা পেঁয়াজ নুন 

চিলিসস দখল নিচ্ছে বোতল বোতল নামছে 

ঘিরে ধরছে চতুর্দিক 

আর কিছু মনে নেই 

 

 

বেডরুম - ৪ 


এমন চিৎকার কখনো শুনিনি নিজের 

অ্যাতো বড় দাঁত দুই পেত্নীর হাতে বুক

                       আধাআধি পৃথিবী 

মুঠোর প্রবল চাপে ক্রমশঃ গুটিয়ে 

                       পাকা টোপাকুল 

আঁচড়ে কামড়ে এ ওকে চাবুক মেরে 

                      হা হা হাসি পেত্নীদুটোর 

বুক ছিঁড়ে কুল খেয়ে 

                       বিচী সোজা ডাস্টবিনে

ধড়মড় উঠে বসেছি চেঁচিয়ে 

ওফ্

চোখেমুখে জল দিয়ে আসি 

--------------------------------------

ছবি ঋণ: গুগল


 

 

 

৫টি মন্তব্য: