সাত্যকি

 


গুচ্ছ কবিতা

বাজার 

 

১. 

 

বিশুদ্ধ রোজগার করে 

ভেবেছিলাম চালিয়ে দেবো 

 

যতই হাঁটছি পথ 

ততই দেখছি 

বহর বাড়ছে বাজারের 

 

বিশুদ্ধ রোজগার কী তবে ফিরিয়ে নেবো 

কোনো এক কিনারায় এসে 

এভাবেই ভাবতে পারি না তাই 

মাপি না বাজারের বহর  





২. 

 

ধাবমান স্রোত থেকে উঠে এসে যদি পাড়ে বসে থাক 

ঠায় - 

এই যে পথ চলা, বাগান করা,  শুকনো পাতাদের ভিড় থেকে 

                       মাটিকে আলগা করা 

এই সব কিছুই স্মৃতি বলে মনে হবে 

 

স্মৃতিহীন থাকব না তাই, 

ভিড়ে যাই প্রত্যেক বিকেলবেলা – 





৩. 

 

খণ্ড চিত্রের ভিতর 

কয়েকটা মুখ জেগে ওঠে 

ওদের আমি চিনি বলে ঝাঁপ দিই 

অখণ্ড আকাশে 

 

দেখি দাঁড়িয়ে আছে আমারই 

সহোদর পিতা মাতা 

আরও কিছু মুখ চিনতে পারি 

 

খণ্ড চিত্রের পাশে এখনও আমি 

মাটির লাবণ্য মেখে   

                               

--------------------------------------

ছবি ঋণ: গুগল


               

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন