অপর্ণা বসু/জুন'২০২২

 


যোজনগন্ধা 


 

এইখানে এই আকাশের তল

রৌদ্রময়  ঝিকিমিক যমুনার জল 

প্রতিদিন খেয়া পারাপার 

এ দুটি মৃণালভুজ বেয়ে  চলে দাঁড়

 

অনূঢা ধীবর কন‍্যা সত‍্যবতী নাম

দেহ ভরা যৌবন কুঞ্চিত কেশদাম

নির্জন খেয়াঘাট ডিঙিখানি একা

কিছুকিছু যাত্রী যেন দৃরে যায় দেখা

 

 

সে ডিঙার যাত্রী হলেন ঋষি পরাশর

 কামার্ত দুটি চোখ তৃষ্ণার্ত স্বর

"কামনা করছি কন‍্যা তোমার  অন্তর"

আকস্মিক সম্ভাষনে কাঁপি থরথর

 

 

জলদগম্ভীর স্বর বুকে এসে বাজে

কোথায় লুকাবো আমি তা বুঝিনা যে

 একাকী কন‍্যা আমি  যমুনার বুকে

কুমারীত্ব দিতে হবে এই দিবালোকে

 

অভয় দিলেন ঋষি সম্ভোগের পরে

মুল‍্যবান কুমারীত্ব পাবে তুমি ফিরে

দিবস আঁধার হবে লজ্জা যাবে ঢাকা 

হবে মৎসগন্ধ পরিবর্তে পদ্মগন্ধ মাখা

 

 মায়াজাল কুয়াশায় ঢেকে গেল সব

আমার বিবশ তনু ঋষির উৎসব

ভালোবাসা নয় শুধু কামনার জ্বালা 

সুবাসিত  হল তনু  সুগন্ধ ঢালা

 

 

অপমান জর্জর অপবিত্র দেহ

নারী জন্ম কলঙ্কিত জানলনা কেহ

সত‍্যবতী পেল তার ধর্ষণের দাম

মৎসগন্ধা মুছে হল যোজনগন্ধা নাম।

 

                 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন