অরুণ পাঠক

 


দুটি কবিতা

হত্যা 



হত্যা যদি করে থাকো মূল মর্মবোধ
পতন নিশ্চিত জেনো আবিশ্ব তোমার


আত্মশক্তি নীরবতা রক্ষা করতে জানে
দেহের ক্ষমতা দিয়ে প্রকৃতি টলে না


বিষণ্ণ দুপুর রাত ক্ষমতা নীরব
পশুপাখি থাকে থাক। মানুষ? হবে না


মাটি তার সুপ্ত ভাষা এই প্রতিমায়
প্রাত্যহিকী জুড়ে রাখে মানব আত্মার


সভ্যতার আরূঢ় বিষাদে গড়া আলো
যে যার ধ্যানস্থ চোখে জগৎ স্বরূপ


যে মর্ম মানুষ গড়ে মনের উৎসাহে
সে মর্ম-জগৎ খুঁড়ে চাও রক্ত, হাড়?





বিষাদ পেরিয়ে গাঁথা  রক্তমাখা ফুল

এখন পড়েছি দেখো নিজের গলায়


মৃত্যুর প্রথম সূত্র শ্লাঘাশত্রুবোধ
কাব্যে যত নদী আছে বাস্তব বিরোধ


সেখানেই বন্ধু তুমি যদি মেনে নিই
অক্ষরে আগুন দেবে বিধর্মী দেখলেই


রক্ত পোড়া আগুনের
  অবিশ্বাসী চোখ
প্রথম যাকেই দেখে সংযোগ সাধক


আকাশের মর্মছায়া শান্তি দান করে
আকাশ আপন দুঃখ সেধেছে সংহারে


এখন বিমূর্ত ক্ষুধা লজ্জা শীল কূল
প্রেতের অজানা স্তম্ভ বেঁধেছে পাথরে।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন