ঐন্দ্রিলা মজুমদার




দুটি কবিতা

 সমর্পণ



মহাকাশ ছুঁয়ে সন্ধান চলেছে
স্তব্ধতার স্তবগান।
ছেঁড়া ছেঁড়া মেঘেদের শরীরে 
জ্যামিতিক নক্সা, নীরব সম্মতিতে 
ছক কাটা ঘরের মতো উদাসীন
'ভালোবাসি' উচ্চারণ। 

সব ইতিহাস ধুয়ে, মুছে মাটির পৃথিবীর কাছে
ধ্যানমগ্ন নির্ভার সমর্পণ। 

কোন এক ব্রাহ্ম মুহূর্তে অপার দিকচক্রবালের
সীমানায় আরব্ধ সুর পৌঁছে যায় 
হ্যালুসিনেশন সম্পূর্ণতায়। 

 পাসওয়ার্ড


ধ্বস্ত হৃদয়ও একটা সময় শম খুঁজে নেয়
অন্ধকারের প্রতিবিম্ব সূর্যলোক অভিসারী।

মুখপুড়ি চাদ বড্ড আনমনা - 
উড়ন্ত জোনাকির কম্পমান কাব্যঘোরে।
অভিমান মুছে কবিতরা আজ প্রশ্রয় প্রত্যাশী।
ভাঙা বিশ্বাস বৃষ্টির এলোচুলে খোঁজে বুনো গন্ধ। 

অবাধ্য স্বপ্নবিভোর মন পা রাখে মাটির পৃথিবীত। 
জংগম প্রহর আর বিষাদ মাখে না,
ছলকে ওঠা মুহূর্তের স্মৃতিভার, নির্ঘুম  রাতের কলংক
সব, সব মুছে যায়…… 

খোলস ভাঙা শামুকের মতো
ঘুমন্ত অক্ষর শব্দের আদরে পূর্ণতা পায়, 
চিলেকোঠার স্বপ্ন  বাঁচে 
রামধনুর অনাবিল স্পর্শে । 



,