রবিন বণিক


দুটি কবিতা

সন্ধিক্ষণ 


গতিবিধি একটি দেশাত্মবোধক ব্যবহার 
বিকেল ও সন্ধ্যার মাঝখানটায় আজকাল খিদে পায় খুব
কী খাব কী খাব ভাবতে ভাবতে বারংবার মনে হয়
দেশ একটি ঐচ্ছিক নদীমাতৃকতা

ভিজতে ভিজতে শহর থেকে গড়িয়ে পড়ে স্তন
আর দুধের নেশায় স্তন খুবলে খায় শিশুর নিরন্তর গতিবিধি 

বিকেল ও সন্ধ্যার মাঝখানটায় আজকাল দেশ পায় খুব—






এবং গিটারে লেখ সন্তরণ 



এবং গিটারে লেখ সন্তরণ 

তার টেনে টেনে ঝাঁপাও, জলের স্বভাবে

তাল ও লয়ে দেহ ভিজে গেলে উঠে এসো

গিটারের কাঠে অপেক্ষা করে আছে গাছের বিবাহ

শয্যা নিভে গেলে সুর খুলে লিখে নিও জীবন



এবং গিটারে লেখ সন্তরণ 

ভেতর হেঁটে আসে গিটারের রাতে—