সানি সরকার

 


গুচ্ছ কবিতা

হলুদ মেরুন দাগ

একজন মরে যাওয়া মানুষের

একবার মরে যাওয়ার পরে

আরেকবারের জন্যে আর কিছুই থাকে না 

বুকের ভেতর ছবির দাগ ও ফুলগুলি ছাড়া 

আর এই পর্যন্ত আসার পরেই

শুরু হয় খনন, এবং খুব ঢালু পাহাড়িরা

পথের দিকে নেমে যাওয়া… 

ও-জানে : জানে বলেই অন্ধকার ও আলোর সঙ্গে 

রং ও দাগের সঙ্গে তার কোনও যোগসূত্র নেই 



একজন মৃত মানুষ আরেকজন মৃত মানুষের 

মৃতদেহ পাহারা দেয় না কখনও



বোনের প্রেমিক 


 

আমার বোন হলুদ রঙ পছন্দ করে 

কারণ তাঁর প্রেমিক হলুদ পছন্দ করেন 

আমার বোন নীল রঙ ভালোবাসে 

কারণ ওঁর প্রেমিকের গাত্রবর্ণ নীল 

আমার বোন ময়ূর পালক বুকে জড়িয়ে রাখে 

কারণ ওঁর প্রেমিকের কপালের ওপরে ময়ূর-পালক 

দেখা যায় 


আমার বোন তাঁর প্রেমিককে 

বুকের ভেতর আগলে রেখেছে

 সন্তানের মতন... 


 

প্রতিটি প্রেমিক তাঁর প্রিয় নারীর কাছে 

 একটি সময় শিশুর মতো শান্ত হয়ে যায় 

 আর নারীটি অতলান্ত দেবী

 

 

 

 ফুলের জন্যে আমার বোনের জন্যে 


 

চারদিকে ফুল ফুটেছে খুব 

ফুলের ওপর ফুল 

ফুলেদের রাণী প্রজাতি রাজা প্রজাপতির 

সেকি উল্লাস 


আমার চারপাশে গাছ ভর্তি ফুল 

আমার চারপাশে মধুর গুনগুন 



আমার বোন ফুল ভালবাসে খুব 

আমার বোন ফুলের ওপর হাত ছোঁয়ায় 

এবং কী চমৎকার একেকটি  পাপড়িগুলি 

বৃষ্টিতে ভিজতে ভিজতে শাদা রঙের পায়রা হয়ে যায় 


বোন, ফুল, প্রজাপতি, পায়রা...


আমি আলাদা করতে পারি না  কিছুতেই

 


 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন