সুশীল হাটুই

 


সাদা বরফ

 

অন্ধকারে দাঁড়িয়ে তারা খসার

ধারা-বিবরণী দিয়ে কালপুরুষ ক্লান্ত। এখন

হরলিকিস অথবা বোর্নভিটা যে দিকেই হাত

বাড়ানো যাক, সেই স্যাডিস্ট পিয়ানোটির

কথা মনে পড়বেই।

 

আমি টর্চের হলুদ প্রতিভা ছড়িয়ে 

দেখেছি,খসে পড়া তারার কোনো গন্তব্য 

নেই। পৃথিবীর দিকে নেমে আসার মুহূর্তে ওরা

অন্ধকারের সঙ্গে পালি ভাষায় 

কথা বলে।

 

নীল কাগজ কেন ফুলদানিকে বাৎসল্যের

চোখে দ্যাখে। অথবা সেকুলার শব্দটির

রেটিনায় কেন গ্লকোমার পিনকোড, এ-সব

জানার আগেই,

 

জ্যামিতিবাক্স-র ডায়েরি থেকে স্পষ্ট 

হয়ে গেল, ত্রিভুজের জন্মের অনেক আগেই

বৃত্ত পৃথিবীতে এসেছে। 

 

তবু আজ যে-কথা না-বললেই নয়,

সাদা বরফ মর্গের তীব্র গন্ধ সহ্য করেও

কুয়াশার সেমিনারে, দারুচিনির কর্মসন্ন্যাস-

যোগের কথা বলে।