অভিজিৎ পালচৌধুরী


চার্লস বুকোস্কি -র Essential Bukowski কবিতা সংকলন থেকে অনূদিত ‌তিনটি কবিতা ।
অনুবাদ : অভিজিৎ পালচৌধুরী


চার্লস বুকোস্কি (১৯২০ - ১৯৯৪ )
আমেরিকার সুবিদিত সমকালীন কবি ও গদ্যকারদের মধ্যে অন্যতম । তাঁর Essential Bukowski কবিতা সংকলন থেকে অনূদিত
‌তিনটি কবিতা ।
#
বন্ধুসুলভ উপদেশ : অনেক ছোকড়াদের এবং অনেক বুড়োদেরও

তিব্বতে যাও।
উটে চড়ো ।
বাইবেল পড়ো ।
তোমার জুতো নীল রং করো ।
দাড়ি রাখো।
কাগজের নৌকোয় দুনিয়া ঘোরো ।
স্যাটারডে ইভনিং পোস্ট এর গ্রাহক হও। 
তোমার মুখের বাঁদিকেই খালি চিবোও।
একটা একঠেঙে মেয়েকে বিয়ে করো এবং সোজা ক্ষুরে কামাও। 
তার পায়ুতে নিজের নাম খোদাই করো।

গ্যাসোলিনে দাঁত মাজো ।
সারাদিন ঘুমোও এবং রাতে গাছে চড়ো ।
সাধু হও, ছর্ররা গেলো এবং বিয়র ।
নিজের মুন্ডুটা জলের নিচে ধরো 
এবং ভায়োলিন বাজাও ।
গোলাপি মোমবাতির সামনে বেলি ডান্স করো। তোমার কুত্তাটাকে মারো ।
মেয়রের কাছে দৌড়াও ।
একটা পিঁপের ভেতর ঢুকে পড়ো ।
নিজের মাথায় কুড়ুল মারো ।
বর্ষায় টিউলিপ লাগাও ।

কিন্তু আর কোন কবিতা লিখো না ।

মূল কবিতা : Friendly advice to a lot of young men and a lot of old men, too
অনুবাদ : অভিজিৎ পালচৌধুরী
#
চড়ুইটি যেমন

জীবন দিতে তোমাকে জীবন নিতেই হবে, 
এবং যেমন আমাদের ক্ষোভ ভোঁতা ও ফাঁপা 
হয়ে যায় শতকোটি রক্তের সমুদ্রে 
এগিয়ে যাই শাদা পা, শাদা পেটের পচা প্রাণী  শোভিত গভীর আন্তর-ভঙ্গুর ঝাঁকে 
দীর্ঘদিন ধরে যারা মৃত এবং পারিপার্শ্বিক দৃশ্যের সাথে দাঙ্গালিপ্ত ।
হ্যাঁ বাছা, আমি তাই তোমাকে করেছি যা 
চড়ুইটি তোমাকে করেছে; আমি বুড়ো যখন ছোকরা হওয়াটাই ফ্যাশন; আমি কাঁদি যখন হাসাটাই ফ্যাশন ।
আমি তোমাকে ঘেন্না করেছি 
যখন ভালবাসতে বেশি দম লাগত না ।

মূল কবিতা : As the sparrow
অনুবাদ : অভিজিৎ পালচৌধুরী
#
যাত্রাবিরতি

রোদের মধ্যে প্রেম করা, সকালের রোদে 
একটা হোটেলের ঘরে 
গলিটার ওপরে 
যেখানে গরীবগুর্বো গুলো বোতলের জন্য ঠেলাঠেলি করে; 
রোদে প্রেম করা 
প্রেম করা কার্পেটের পাশে যা আমাদের রক্তের চেয়ে লাল, প্রেম করা যখন ছোঁড়াগুলো হেডলাইন বিক্রি করে এবং ক্যাডিলাক 
প্যারিসের একটা ছবির পাশে প্রেম করা এবং একটা চেষ্টারফিল্ড এর প্যাকেটের পাশে,
প্রেম করা যখন অন্য লোক গুলো - 
বেচারা বোকা গুলো - কাজ করে ।

সেই মুহূর্ত থেকে এই . . .
হয়তো অনেক বছর তারা যেভাবে মাপে,
কিন্তু আমার মনে এটা একটাই মাত্র 
কথার ফারাক - 
কতো দিন পড়ে থাকে 
যখন জীবন থেমে যায় এবং টেনে তোলে, 
বসে এবং অপেক্ষা করে 
রেললাইনের ওপর রেলগাড়ির মত ।
আমি হোটেলটিকে পেরোই ৮টায় 
এবং ৫টায় ; গলিতে যখন বিড়াল 
বোতল এবং ভবঘুরে, 
এবং আমি জানলার দিকে তাকাই, ভাবি
"আমি আর জানিনা তুমি কোথায় আছো", 
এবং আমি হাঁটি, বিস্মিত হই -
জীবিতরা কোথায় যায় 
যখন সেটা থেমে যায় ।

মূল কবিতা : Layover
অনুবাদ : অভিজিৎ পালচৌধুরী