সঞ্জয় আচার্য/জুন'২০২২

 


যযাতি


 

আবার এসেছেন যযাতি মৃগয়া শিকারে

বনস্থলির বৃক্ষলতায় উন্মুক্ত নিঃশ্বাস

ক্রীড়ারতা

 

এখন উদ্যান বাটিকায় দেবযানী, বীথি-ছায়াতল

একদা কূপ থেকে তুলেছেন যযাতি তাকে,

সে ষোড়শীর পাশে আজ অন্যতোয়া

রূপের মঞ্জরী সে

শর্মিষ্ঠা নগরী

 

ব্যাকুলিত দেবদারু

ক্ষুরের শব্দে শোনে ক্ষুধাতুর ফাগুন

এইসব দীনতম দিনে পৃথিবীও

হাওয়ায়  জাগিয়ে দেয় আকাঙ্ক্ষার আগুন

 

কে তাহাকে প্রেম দেবে কে তাহাকে রূপ

অদূরে অতল নদী নিকটে জলোচ্ছ্বল কূপ,

একটি আধারে এসে করুক কোলাহল

বেলা পড়ে আসে

উন্মুক্ত আকাশ, নিকটে স্নিগ্ধ দোলাচল জল

 

উন্মুখ আলিঙ্গন আশে

যযাতি ঘুরিয়া মরে গঞ্জে নগরে, সহসা তটিনীর ক্ষণে

যযাতি পুড়িয়া যায় অন্যতরা গোপন মিলনে

 


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন