জুয়েল মাজহার








  পরিযায়ীদের দিন 



ফের                                       আসছে কি শীত
এসে                                       দিচ্ছে কি ধার
তার                                        তীক্ষ্ণ দাঁতে  




হাওয়া                                      আনছে কাঁপন
ধু-ধু                                          শ্বেত নরকের
কোন                                       সাইবেরিয়ায়
এক                                         ঘোর কফিনে
শুধু                                          মৃত্যু লেখা
 

সেই                                         মৃত্যু-নখর
হানে                                        ঠাণ্ডা বিষের
ঘন                                          তীব্র তুষার
        



আজ                                        রাত-তিমিরে
পাখি                                         সব পেরিয়ে
আসে                                       আজ পালিয়ে




কেউ                                         লেজঝোলা আর
কেউ                                         লম্বা ডানার




শীতে                                         ঠোঁট ফেটে যায়
লাগে                                         দাঁত-কপাটি
হাওয়া                                        বদ কিসিমের;




তাওয়া                                           তপ্ত, তবু
রুটি                                              একটাও নেই
আজ                                             জুটবে না আর
নীল                                               নৈশভোজের
ডাল                                              সুক্তো, ভাজি





কাল                                               খাইনি কিছু
ভুখা                                                নগ্ন, করুণ;
কাঁদি                                               ঠায় বসে,হায়,
আজো                                            দুগ্ধবিহীন!



যদি                                                  নাইবা জোটে
ভাত,                                                শুকনো রুটি
খাবো                                               আসমানি কেক
দেবো নাচ                                        সনাতন
 



যার                                               আল্লা আছে
যার                                               দুইপেয়ে এক
আছে                                            নীল ভগবান



তার                                                খিড়কিপথে
আসে                                             হুর-পরি; তার





হাতে                                             এক-পেয়ালা
ধরা                                               সোম-সুরাবেশ





নেড়ে                                           লকলকে জিভ
আমি                                           হ্যাংলা প্রেমিক
দেখি,                                           আখড়াতে এক
বসে                                             বোষ্টুমি তার
ভেজা                                           চুল ছড়িয়ে
গায়                                               নিজ মনোগীত




সে কি                                          শুশ্রূষাহীন
সে কি                                          ধুঁকছে একা?



তাকে                                           মেঘ এনে দাও


 
ঘন                                               ক্ষীর ও পায়েস
দাও                                              পাত্র ভরে





তার                                               জ্বর-কপোলে
দাও                                                উষ্ণ চুমু


এসো                                              গুপ্তপথে
ধীর                                                 শান্ত পায়ে
ঘন                                                  আচ্ছাদিত
পাতা,                                              ফুলবাহারে




যবে                                               শীত চলে যায়
পাখি                                              ফের উড়ে যায়




যদি                                             নাইবা আসে
পাখি                                           আর কোনোদিন?


তবে                                             থাকলো কি আর
আমি                                           গানভোলা আর  
হবো                                             হরবোলা এক




পাখি,                                         কাঁদবো বসে
তোকে                                       খুঁজবো একা
এই                                             মগরা নদীর
ধু-ধু                                            শূন্য পাড়ে




জানি                                             অন্য কোথাও  
লেজ                                              হ্রস্ব-দীঘল
কতো                                              রঙ-বাহারে
পাখি                                               মেলবি ডানা





এই                                                চোখ দুটিতে
আয়                                               অন্য বছর
আয়                                               নেত্রকোণায়
আয়                                                নীল হাওরে




ফের                                               আয় রে উড়ে
এই                                                  মগরা নদীর
ধু-ধু                                                   শূন্য পাড়ে





 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন