পল্লববরন পাল/জুন'২০২২

 


সীতায়ণ


 

আজকাল ছানিচোখে সবকিছু আবছা কুয়াশা

আগুনের উল্লাস যখন পাটিগণিত-অবলীলায়

মানুষকে পুড়িয়ে মারছে জতুগৃহের উঠোনচিতায়

রাষ্ট্র বলে চলেছে – ঘটে যা, তা সব সত্য নয়

ঠিক তখনই রামায়ণের পাতায় আগুন লাগিয়ে

মলাটদরজা খুলে বাইরে এলেন দাউদাউ-সীতা

আশপাশভীড়ে খুঁজে না পেয়ে নিষাদস্বরে বলে উঠলেন –

ডাকো তোমাদের রাজাকে, এবার আমি পরীক্ষক হবো

 

কী আশ্চর্য, অমনি

আমার চোখের ছানিকুয়াশা কেটে ক্রমস্পষ্ট হলো আকাশ

আর একটা পেটকাটি চাঁদিয়াল উপবৃত্তপথে দৌড়ে দৌড়ে

তাড়া করে বেদম করে তুললো অমরত্বলোভী আস্ত সময়কে    

 

 

 

৫টি মন্তব্য:

  1. অমরত্বলোভী সময়... আস্ত একটা সময়... দারুণ।

    উত্তরমুছুন
  2. ঠিক কথা। এইবার আমাদেরই পরীক্ষক হবার সময় এসেছে। বলিষ্ঠ লেখা।

    উত্তরমুছুন
  3. আপনার কবিতার আমি নিয়মিত পাঠক। সম্প্রতি লক্ষ্য করছি, আপনার উচ্চারণ প্রেমের ঋষভ থেকে ধারালো ধৈবতে পৌঁছেছে। এটা কি সচেতন ভাবে করছেন, নাকি সময় আপনাকে চিৎকার করতে বাধ্য করছে? নাকি আপনার কবিতা দিক বদলাচ্ছে?

    উত্তরমুছুন
  4. দাউদাউ সীতা?
    দারুন বলেছেন দাদা
    - সুমনা চক্রবর্তী

    উত্তরমুছুন